×
অনুসন্ধান
EveryBengaliStudent.com
জীবন এবং ঈশ্বর বিষয়ক প্রশ্নগুলি
 আবিস্কার করার জন্য নিরাপদ স্থান
প্রশ্ন ও উত্তর

আমি কেন ঈশ্বরকে খুশি করব?

WhatsApp Share Facebook Share Twitter Share Share by Email More PDF

প্রশ্ন: ‘‘আমি আমার জীবনে আনন্দ খুঁজে পেয়েছি। তাহলে কেন একটি ঐশ্বরিক সত্ত্বা ধারণার থেকে আমার উদ্দেশ্য এবং আনন্দের উপলব্ধি প্রয়োজন?’’

আমাদের উ: আপনি ঠিকই বলেছেন, আপনি ঈশ্বরকে ছাড়া আপনার জীবনে আনন্দ পেতে পারেন। অনেকে মানুষ আর্থিক স্বচ্ছলতা, একটি সুখী পরিবার এবং জীবনের কিছু সমস্যাগুলোও উপভোগ করেন। তবে, আপনার এখন যতই আনন্দ থাকুক না কেন, ঈশ্বেরের সাথে আপনার জীবন আরও পরিপূর্ণতা লাভ করবে। ঈশ্বরকে জানা বিশাল এক পার্থক্যের সৃষ্টি করে। এভাবে ধরুন। ট্রাইসাইকেলে চালানো একটা শিশুর কাছে আনন্দের হতে পারে তবে যখন সেই শিশু বড় হয়ে একটি পোর্শ চালায় তখন তার কাছে সেই ট্রাইসাইকেলটি অনেকটা একঘেয়েমি লাগে। আপনি হয়ত এটা ভাবতে পারেন যে আপনার জীবনে আপনি যা কিছু চেয়েছেন তা পেয়ে গেছেন, কিন্তু জেনে রাখুন যে আপনি হয়ত কারও ট্রাইসাইকেল চালানো দেখেই এমনটা বলছেন।

যীশু বলেছেন যে তিনি আমাদের সেই সকল আকাঙ্খা পূরণ করতে পারেন যা অন্য কিছুই করতে পারে না (যোহন ৪:১৩-১৪; ৬:৩৫)। এর কারণ হল আমরা শুধুমাত্র শারীরিক জীব নই, আমরা আত্নিক জীব। শুধুমাত্র ঈশ্বরই আমাদের সেই আত্নিক ক্ষুধা এবং তৃষ্ণা মেটাতে পারেন। আর হয়ত যখন আমরা ঈশ্বরকে ছাড়া সুখী থাকি, তখন এটা শুধুমাত্র ঈশ্বরকে জানার মাধ্যমেই সত্যিকারের আনন্দ, পরিপূর্ণতা এবং শান্তি লাভ করতে পারি।

আর এখানে অনন্তজীবনের বিষয়েও প্রশ্ন রয়েছে। যদি পৃথিবীতে আপনার এই সীমিত সময়টি ঈশ্বরের কাছ থেকে পরীক্ষা হিসেবে হয় তাহলে কেমন হবে? এমন একটি পরীক্ষা যেটা হল আপনি তাঁকে জানতে পারবেন কিনা? যদি তাই হয়, তাহলে আপনি কীভাবে এই পরীক্ষা করছেন? আপনি কি (রোমীয় ১ এ যেভাবে বলেছে) সেভাবে ঈশ্বরের জ্ঞানকে ‘‘চেপে’ রাখছেন? আপনি কি আপনার আশেপাশে তাঁর উপস্থিতির প্রমাণ পেয়ে তবুও তাঁকে জানতে চাচ্ছেন না?

আপনি যদি কখনও আপনার জীবনে ঈশ্বরকে গ্রহণ করতে না পারেন তাহলে কেমন হবে? দেখুন, আপনি যেটা বলেছিলেন, আপনি এখনও জীবনের সব সুযোগ-সুবিধা ভোগ করতে পারেন। কিন্তু জেনে রাখুন যে এগুলো এখানেই শেষ হয়ে যাবে, কারণ আপনি ঈশ্বরকে প্রত্যাখ্যান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আপনি উপহারটি (অস্তিত্ব) গ্রহণ করেছেন, কিন্তু যিনি আপানাকে এটা দিয়েছেন তাকেই প্রত্যাখ্যান করছেন।

কেমন হবে যদি ঈশ্বর এখনও নিজেকে প্রকাশ না করে নি, কিন্তু পরবর্তী জীবনের জন্য অনেক সৃজনশীল পরিকল্পনা করে রেখেছেন? কেমন হবে সেই জীবনটি এই জীবনের থেকে উচ্চতর হয় এমনকি ট্রাইসাইকেল চালানোর থেকে কোন পোর্শ চালানোর চেয়েও আনন্দময় হয়? যদি আপনি ঈশ্বরকে অস্বীকার করে থাকেন, তাহলে আপনি এটা দেখার জন্য সেখানে থাকবেন না।

 আমার একটি প্রশ্ন বা মন্তব্য আছে…
 কিভাবে ঈশ্বরের সাথে একটা সম্পর্ক শুরু করেন

এই প্রবন্ধটি শেয়ার করুন
WhatsApp Share Facebook Share Twitter Share Share by Email More