×
অনুসন্ধান
EveryBengaliStudent.com
জীবন এবং ঈশ্বর বিষয়ক প্রশ্নগুলি
 আবিস্কার করার জন্য নিরাপদ স্থান
প্রশ্ন ও উত্তর

ক্যাথলিক এবং খ্রীষ্টিয়ান এর মধ্যে কি কোন পার্থক্য রয়েছে?

WhatsApp Share Facebook Share Twitter Share Share by Email More PDF

প্রশ্ন: ‘‘একজন ক্যাথলিক এবং একজন খ্রীষ্টিয়ান এর মধ্যে কি কোন পার্থক্য রয়েছে?’’

আমাদের উত্তর: এখানে অনেক খ্রীষ্টিয় মন্ডলী এবং চার্চ রয়েছে: ক্যাথলিক, প্রেসবিটারিয়ান, ম্যাথডিস্ট, ব্যাপ্টিষ্ট, লুথারিয়ান এবং আরও অনেক। এগুলো যেকোন একটির সদস্য হওয়ার মানে এই নয় যে সেই ব্যক্তি একজন খ্রীষ্টিয়ান।

এখানে মূল বিষয়টি হল আলাদাভাবে সেই ব্যক্তির মধ্যে যীশু খ্রীষ্ট বাস করেন কি না... তাদের সাথে ঈশ্বরের ব্যক্তিগত কোন সম্পর্ক আছে কি না।

যোহন লিখিত সুসমাচারে, আমাদের বলা হয়েছে, দদতবে যতজন তাঁর উপর বিশ্বাস করে তাঁকে গ্রহণ করল তাদের প্রত্যেককে তিনি ঈশ্বরের সন্তান হবার অধিকার দিলেন।’’ কারণ তখন ঈশ্বর দূরে ছিলেন। আমরা হয়ত তার উপস্থিতি বুঝতে পারি। আমরা হয়ত এটা জানতে পারি যে আমাদের তাঁর আরাধনা করা উচিত। আমরা এটাও জেনে থাকতে পারি যে, আমাদের প্রয়োজনের সময় আমরা তাঁর কাছেই প্রার্থনা করব। কিন্তু আমাদের সাথে তাঁর একটি দূরত্ব আছে আর সেটি হল আমাদের পাপ।

এখন, আমরা যতদিন পর্যন্ত শ্বাস-প্রশ্বাস নিয়ে বেঁচে আছি, ভেবে বলুন তো কী, আমরা পাপ করতেই থাকব। আমরা ঈশ্বরের পথ ছেড়ে দিয়ে আমাদের পাপের পথেই বেছে নেব। কিন্তু আমাদের পাপ এখন ঈশ্বর এবং আমাদের মধ্যে বাধাস্বরূপ হয়ে থাকবে না। তা কিভাবে থাকবে না তা নিচে দেয়া হল।

বাইবেল আমাদেরকে বলে যে পাপের ফলাফল হল মৃত্যু, আর এটা আপনার প্রত্যাশার থেকেও বেশি কিছু হতে পারে। পাপের ফলাফল মৃত্যু। এটা শুধু একজন খুনীর মত পাপের শাস্তি নয়। এটা হল সকলের সকল পাপের প্রতি ঈশ্বরের বিচার। বাইবলে বলে,‘‘ পাপ যে বেতন দেয় তা মৃত্যু...’’ আমরা যাতে আমাদের পাপের জন্য ঈশ্বরের কাছ থেকে চিরতরে পৃথক হয়ে গিয়ে মারা না যাই, সেজন্য যীশু আমাদের বদলে মৃত্যুবরণ করেছেন। তিনি সম্পূর্ণভাবে আমাদের পাপের বেতন দিয়ে দিয়েছেন। আর তিনি আমাদেরকে সম্পূর্ণভাবে ক্ষমা করতে চাচ্ছেন। এটা সময়িক কোন ক্ষমা নয়। এমনকি আমরা ভবিষ্যতে যে পাপগুলো করতে যাচ্ছি, সেজন্য আমরা এখনই তাঁর ক্ষমা পেতে পারি, কারণ যীশু আমাদের সমস্ত পাপের জন্য মরেছেন। আমরা এখনই তাঁর সাথে ঘনিষ্ঠ, ব্যক্তিগত সম্পর্ক তৈরী করতে পারি, যেটি আমাদেরকে পাপের বোঝা থেকে মুক্তি দেবে। এটা এমন নয় যে আমরা নিখুঁত হয়ে যাব এবং আর কোন পাপ করব না। কিন্তু যখনই আমরা দেখব যীশু আমাদের পাপের জন্য আমাদের পরিবর্তেই মরেছেন, তখনই আমরা ক্ষমাপ্রাপ্ত হব।

‘‘কারণ সবাই পাপ করেছে এবং ঈশ্বরের প্রশংসা পাবার অযোগ্য হয়ে পড়েছে।কিন্তু খ্রীষ্ট যীশু মানুষকে পাপের হাত থেকে মুক্ত করবার ব্যবস্থা করেছেন এবং সেই মুক্তির মধ্য দিয়েই দয়ার দান হিসাবে বিশ্বাসীদের নির্দোষ বলে গ্রহণ করা হয়।’’

যখন আমরা যীশু খ্রীষ্টকে আমাদের জীবনে গ্রহণ করি, তখন ঈশ্বর আমাদেরকে ‘‘দোষী মনে করেন না’’ এবং তিনি বলেন যে আমরা এখন ‘‘ ঈশ্বরের কাছে নির্দোষ’’। ঈশ্বরের সাথে আমাদের সম্পর্ক এমন একটি সত্যিকার উপায়ে শুরু হয়েছে, যেখানে এই বিষয়টি আর নেই যে ঈশ্বর আছেন, বরং এর পরিবর্তে আমরা এখন জানি যে তিনি আমাদের মধ্যেই বাস করেন। ঈশ্বরের সাথে সম্পর্কের মাধ্যমে আমরা তাঁর ক্ষমা পেতে পারি। ‘‘পাপ যে বেতন দেয় তা মৃত্যু, কিন্তু ঈশ্বর যা দান করেন তা আমাদের প্রভু খ্রীষ্ট যীশুর মধ্য দিয়ে অনন্ত জীবন।’’

আপনি যদি এই বিষয়ে নিশ্চিত হতে চান যে ঈশ্বরের সাথে আপনার ব্যক্তিগত সম্পর্ক রয়েছে, আপনার পাপের ক্ষমা করা হয়েছে এবং ঈশ্বর আর আপনার মধ্যে আর কোন বাধা নেই, তাহলে কীভাবে সেটা আপনি করবেন সে বিষয়ে নিচে ব্যাখ্যা করা হয়েছে: ব্যক্তিগতভাবে ঈশ্বরকে জানা

 আমার একটি প্রশ্ন বা মন্তব্য আছে…
 কিভাবে ঈশ্বরের সাথে একটা সম্পর্ক শুরু করেন

পাদটীকাসমূহ: ((১)যোহন ১:১২ (২) রোমীয় ৬:২৩ (৩) রোমীয় ৩:২৩,২৪ (এনএলটি) (৪) রোমীয় ৬:২৩


এই প্রবন্ধটি শেয়ার করুন
WhatsApp Share Facebook Share Twitter Share Share by Email More